সারা দেশ জুড়ে প্রতিদিন যে হরে বাড়ছে কোরোনা সংক্রমন তাতে চিন্তা বাড়ছে সবারই, গোটা দেশের সাথে পাল্লা দিয়ে আক্রান্তর সংখ্যা বাড়ছে বাংলাতেও|ইতিমধ্যে আক্রান্তর সংখ্যা কুড়ি হাজার ছাড়িয়ে মৃতের সংখ্যা একশো ছাড়িয়েছে আগেই|উল্লেখযোগ্য ভাবে জেলার তুলনায় কলকাতায় বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেনা এবং তারপরেই রয়েছে উত্তর চব্বিশ পরগনা|গ্রাম বা মফস্সলের থেকে এই মুহূর্তে বেশি খারাপ অবস্থা শহর গুলোর|

কলকাতার সংক্রম বিরাট আকার নিয়েছে বহুতল ও আবাসন গুলিতে|একেকটি আবাসনে একাধিক মানুষে আক্রান্ত এবং সংখ্যাটি দিন দিন বেড়েই চলেছে|এর প্রধান কারন আবাস গুলির উপর সঠিক  নজরদারির অভাব এবং যথাযত স্বাস্থ সংক্রান্ত বিধি নিষেধ না মেনে চলা|
শহরতলির বহুতল গুলিতে অবাধ যাতায়াত রয়েছে সব স্তরের মানুষের, অনেকক্ষেত্রেই সামাজিক দুরুত্ব পালন হচ্ছে না|আক্রান্তদের আইসোলেসোনের ক্ষেত্রেও ঢিলেমি লক্ষ্য করা যাচ্ছে, অনেকেই আক্রান্ত হয়েও নিয়ম না মেনে বাইরের ঘুরেও বেড়াচ্ছেন আবার অনেক কম জায়গায় অনেক গুলি পরিবার এক সাথে বাস করে এই আবাসনগুলিতে ফলে উপযুক্ত সাবধানতা  অবলম্বন না করার ফলে একজন সংক্রমিত ব্যাক্তি থেকে অন্যদের মধ্যে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার ঝুকি অনেক বেশি|

অন্যদিকে যারা বয়স্ক এবং একা থাকেন তারা অনেকেই আক্রান্ত হয়ে অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন, সঠিক পরিষেবা টুকুও পাচ্ছেননা|চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞদের মতে কলকাতার সংক্রমন কমাতে হলে এই আবাসন গুলির দিকে বিশেষ নজর দিতেই হবে|নাহলে আগামী দিনে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতে পারে|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here